1. [email protected] : mainadmin :
  2. [email protected] : special_reporter :
  3. [email protected] : subadmin :
বাংলার চোখ নিউজ | অনলাইন সংস্করণ | একমাত্র ছেলে সৌদি আরবে নিহত, মা হাসপাতালে
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৫১ অপরাহ্ন

একমাত্র ছেলে সৌদি আরবে নিহত, মা হাসপাতালে

বাংলার চোখ সংবাদ
  • সময়ঃ শনিবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২১

মোঃ রবিউল ইসলাম খান : 

মোঃ মুরাদ হোসেন (২৭) প্রায় ৬ মাস আগে বিয়ে করেন। বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান ছিলেন তিনি। তিন মাস আগে রেষ্টুরেন্টের কাজে দ্বিতীয় বারের মত সৌদি আরব যান তিনি। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস, তিনি কাজে থেকে বাসায় যেতে পারলেন না। শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) বিকাল ৫টায় সৌদি আরব মদিনা শহর থেকে ২৫০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত আল হাইল নামক স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় তার নির্মম মৃত্যু হয়েছে বলে জানা যায়।।

শুক্রবার রাতে এ সংবাদ পরিবারের কাছে পৌঁছলে মা শোকে জ্ঞান হারিয়ে বর্তমানে রায়পুর সরকারি হাসপাতালর চিকিৎসাধীন। এতে শোকের মাতম বিরাজ করতে দেখা গেছে এলাকাবাসীর মাঝে।। নিহত যুবক মুরাদ হোসেন লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউপির ১নং ওয়ার্ড আজগর আলী বেপারী বাড়ীর আনোয়ার হোসেন ও মা হোসনেয়ারা বেগমের ছেলে। মুরাদের পিতা-মাতা ও স্ত্রী রয়েছে। ৬ মাস আগে মুরাদ বিয়ে করেছেন। নিহতের পরিবার ও প্রবাসী সূত্রে জানা গেছে, তিন বছর আগে সৌদিআরব থেকে বাড়ীতে এসে প্রায় ৬ মাস আগে বিয়ে করেন। তিন মাস আগে ৫ লক্ষ টাকা ঋণ করে আবার সৌদি আরব যান মুরাদ। গত ১২ ডিসেম্বর মোটরসাইকেল যোগে ফার্নিসার দোকানের কাজ শেষে তার শহরের বাসায় ফিরছিলেন। এ সময় বিপরীত দিক থেকে বেপরোয়া গতিতে আসা ১টি গাড়ি (মাইক্রো) ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলে তিনি মারাত্মক জখম হন। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান। অবশেষে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) মারা যান মুরাদ।

একমাত্র ছেলের মৃত্যুর খবরে শোকাহত মা এখন রায়পুর সরকারি হাসপাতালে মৃত্যু শয্যায়। এ ঘটনায় কেরোয়া ইউপি সদস্য আবুল কালাম কালু মুন্সি জানান, নিহত মুরাদ ভালো ছেলে ছিলেন। তার নির্মম মৃত্যুতে পরিবারের সাথে আমরা শোকাহত। একমাত্র ছেলের শোকে মা রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন। দ্রুত তার লাশ দেশে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।

 

এমটিকে//বাংলারচোখ

শেয়ার করুন...

আরও খবর...
© All rights reserved © 2021 | বাংলার চোখ নিউজ
Theme Customized BY LatestNews