1. [email protected] : mainadmin :
  2. [email protected] : Mohsin Molla : Mohsin Molla
  3. [email protected] : subadmin :
বাংলার চোখ নিউজ | অনলাইন সংস্করণ | নওগাঁয় উজ্জল হত্যার রহস্য উদঘাটন
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:২৪ অপরাহ্ন

নওগাঁয় উজ্জল হত্যার রহস্য উদঘাটন

বাংলার চোখ সংবাদ
  • সময়ঃ বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১
শহিদুল ইসলাম :
নওগাঁয় উজ্জল হোসেন হত্যার সাথে জড়ীত ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত ২ জন বিজ্ঞ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। সুদের পাওনা টাকা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে পরিকল্পিতভাবে নেশা সেবন করার কথা বলে উজ্জ্বল হোসেন (২৫) কে ডেকে নিয়ে গলা ও পায়ের রগ কেটে হত্যা করেন তারই ৪ বন্ধু। মঙ্গলবার দুপুরে নওগাঁ জেলা পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম মহোদয় সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।
হত্যাকান্ডের শিকার উজ্জ্বল হোসেনের বাড়ি নওগাঁ জেলা সদর উপজেলার বিল ভবানীপুর গ্রামে। গত রবিবার সকালে বিল ভবানীপুর গ্রামের লোকজন মাঠে কাজ করতে গিয়ে একটি গভীর নলকূপের পার্শ্ববর্তী পাট ক্ষেতে উজ্জ্বল হোসেন এর রক্তাক্ত মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে নওগাঁ সদর মডেল থানায় খবর দিলে থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে প্রাথমিক সুরতহাল রির্পোট অন্তে মৃতদেহ উদ্ধার পূর্বক নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে নিয়ে ময়না তদন্ত শেষে স্বজনদের নিকট মৃতদেহ হস্তান্তর করেন।
এ ঘটনায় উজ্জ্বলের মা রহিমা খাতুন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা কয়েক জনের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। নওগাঁ সদর মডেল থানা পুলিশ ঐ দিনই অভিযান চালিয়ে হত্যার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ৬ জনকে আটক করে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদকালে ২ জন হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা শিকার করলে পুলিশ মোট ৩ জনকে গ্রেফতার দেখায় এবং অপর ৩ জনকে ছেড়ে দেয়।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, উজ্জ্বল হোসেন হত্যার ঘটনায় ৪ জন জড়িত। তারা উজ্জল এর বন্ধু এবং সবাই নেশা (মাদক) কারবারী ও সেবনকারী। হত্যাকাণ্ডে জড়িত ৪ জনের মধ্যে ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
গ্রেফতারকৃত ৩ জন হলেন বিল ভবানীপুর গ্রামের সুজন (২৯), শরিফ (২৫) ও আবদুল হান্নান (২৮)। এই ৩ জনের মধ্যে সুজন ও শরিফ গত সোমবার বিকালে বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এ হত্যাকান্ডের সাথে আরো একজন জড়িত, কিন্তু বর্তমানে সে পলাতক রয়েছে, তাকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ তৎপর রয়েছে।
হত্যাকারীরা শনিবার স্থানীয় বাজারের একটি দোকানে মিলিত হয়ে হত্যার পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী ঐদিন রাত সাড়ে ৮টার দিকে রায়হান ও হান্নান ফোন করে উজ্জ্বল হোসেনকে নেশা সেবন করার কথা বলে বিল ভবানীপুর গ্রামের একটি নির্জন মাঠে ডেকে নেয়। সেখানে শরিফ ও সুজনও যান। এরপরই পরিকল্পনা মত সেখানে উজ্জ্বলকে হত্যার পর মৃতদেহ পাশের একটি পাট ক্ষেতে ফেলে রেখে চলে যান আসামিরা।
এমটিকে/বাংলারচোখ

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

আরও খবর...
© All rights reserved © 2021 | বাংলার চোখ নিউজ  
Theme Customized BY LatestNews