1. [email protected] : mainadmin :
  2. [email protected] : subadmin :
বাংলার চোখ | পাহাড়ে ভ্রমণের আগে ৫ সতর্কতা
বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ০৫:৩৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজঃ
অতিরিক্ত সচিবকে খামচি দিয়েছেন ও থাপ্পড় মেরেছেন রোজিনা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে সাংবাদিক রোজিনার গ্রেফতারের খবর ভারতে ঘূর্ণিঝড় টাউটির আঘাতে নিহত বেড়ে ২১, নিখোঁজ শতাধিক বজ্রপাতে প্রাণ গেল ১০ জনের রোজিনাকে হেনস্তার প্রতিবাদে ঢাকা দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় প্রেসক্লাবের নিন্দা ও কর্মসূচি ঘোষণা ‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে দু’দিন পরপর ভূতের আছর পড়ে’ রোজিনাকে গ্রেফতার নয়, পদক দেয়া উচিত : জাফরুল্লাহ চৌধুরী আপনার সঙ্গী একান্তে যে কথাগুলো শুনতে চান সাংবাদিক রোজিনা গ্রেফতার হওয়ায় তারকাদের প্রতিবাদ কর্মীর সঙ্গে সম্পর্কের তদন্ত শুরু হলে মাইক্রোসফট ছাড়েন বিল গেটস

পাহাড়ে ভ্রমণের আগে ৫ সতর্কতা

বাংলার চোখ সংবাদ
  • সময়ঃ শনিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২০

এখন বেড়ানোর মৌসুম। এই শীতে অনেকেই সপরিবারে ঘুরতে যাবেন পার্বত্য এলাকায়, পাহাড়ে। তবে মনে রাখবেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে ম্যালেরিয়ার প্রকোপ বেশি। তাই সেখানে ঘুরতে যাওয়ার সময় প্রয়োজন বাড়তি সতর্কতা।

  1.  মশারি বাজারে পাওয়া যায় এখন, সেগুলো ভালো। এ ছাড়া মশা তাড়ানোর বিশেষ ক্রিম ব্যবহার করা যেতে পারে। মশার কামড় থেকে বাঁচতে হাতে-পায়ে এই ক্রিম মেখে ফুলহাতা জামা ও পাজামা বা প্যান্ট পরে মম্যালেরিয়া-প্রবণ এলাকায় বেড়াতে গেলে অবশ্যই মশারি ব্যবহার করতে হবে। বিশেষ কীটনাশকযুক্তশারির বাইরে বেরোতে হবে। এ ছাড়া হোটেল বা রিসোর্টের ঘরে, বাথরুমে ও বারান্দায় মশার ওষুধ স্প্রে করে নিন।
  2. ম্যালেরিয়া প্রতিরোধে কোনো ওষুধ সেবন করে তেমন কাজ হয় না। আগে পার্বত্য এলাকায় যাওয়ার আগে কিছু ম্যালেরিয়া প্রতিষেধক ওষুধ খেতে বলা হতো। এখন সেগুলোর কার্যকারিতা নেই। তাই কোনো ওষুধ সেবন করে ম্যালেরিয়া থেকে নিরাপদ আছেন ভেবে নিশ্চিন্ত থাকার সুযোগ নেই। বরং মশার আক্রমণ থেকে বাঁচার চেষ্টা করুন।
  3. ম্যালেরিয়া-প্রবণ এলাকায় বেড়াতে যাওয়ার পর অথবা সেখান থেকে ফিরে আসার পর জ্বর হলে অতিসত্বর চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। আপনি কোথায় গিয়েছিলেন তা চিকিৎসককে জানান। দ্রুততম সময়ে রোগ নির্ণয় ও দ্রুত চিকিৎসা শুরু করতে পারলেই ম্যালেরিয়ার মারাত্মক জটিলতাগুলো এড়ানো সম্ভব
  4.  গর্ভাবস্থায় কোনো নারীর ম্যালেরিয়া-প্রবণ এলাকায় বেড়াতে যাওয়া উচিত নয়। কারণ, গর্ভাবস্থায় ম্যালেরিয়া হলে সেটি মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে, এমনকি রোগীর মৃত্যুও হতে পারে।
  5.  যাঁদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কম, যেমন: কিডনি প্রতিস্থাপনকারী বা এইডস আক্রান্ত ব্যক্তিরা ম্যালেরিয়া-প্রবণ এলাকায় যেতে চাইলে তাঁদের এসব সতর্কতার পাশাপাশি ধ সেবন করতে হবে। যাওয়ার এক সপ্তাহ আগে থেকে শুরু করে ফিরে আসার চার সপ্তাহ পর পর্যন্ত ওষুধ সেবনওষু করার নিয়ম। ম্যালারোন নামক ওষুধ এই সময়ে প্রতিদিন অথবা মেফলোকুইন সপ্তাহে একবার করে সেবন করা যায়।

 

  -সহযোগী অধ্যাপক, মেডিসিন বিভাগ, ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল

সামাজিক মাধ্যমগুলোতে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

এই বিভাগের আরও খবর...
© All rights reserved © 2021 www.banglarchokhnews.com  
Theme Customized BY LatestNews