1. [email protected] : mainadmin :
  2. [email protected] : special_reporter :
  3. [email protected] : subadmin :
বাংলার চোখ নিউজ | অনলাইন সংস্করণ | ‘বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কার মতো হওয়ার সুযোগ নেই’
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৭:৪৭ অপরাহ্ন

‘বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কার মতো হওয়ার সুযোগ নেই’

বাংলার চোখ সংবাদ
  • সময়ঃ সোমবার, ১৬ মে, ২০২২

বাংলার চোখ নিউজ :

বাংলাদেশের পরিস্থিতি শ্রীলঙ্কার মতো হওয়ার সুযোগ নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্ব ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট জুনায়েদ কামাল আহমদ।

সোমবার (১৬ মে) নগরীর শেরে বাংলা নগরে অবস্থিত পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রী এম এ মান্নানের সঙ্গে এক বৈঠকে এ কথা বলেন তিনি। বৈঠক শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি অনুযায়ী আমাদের শ্রীলঙ্কার মতো হওয়ার সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন বিশ্ব ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট। তাদের কাছ থেকে এ ধরনের মন্তব্যে আমরা আনন্দিত। কারণ, যে যেটাই বলুক আমাদের অবস্থা আসলেই শ্রীলঙ্কার মতো হবে না। সবকিছুরই ধ্বংস আছে, সে অনুযায়ী সবারই ধ্বংসের মুখোমুখি হতে হবে। তবে একেকজনের ধ্বংস একেক রকম হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, জুনায়েদ কামাল আহমদ আমাদের মাটির সন্তান, বিশ্ব ব্যাংকের মতো বড় প্রতিষ্ঠানের ভাইস প্রেসিডেন্ট। তার দল-বল নিয়ে তিনি আমার সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে তিনি জানিয়েছেন, মাল্টিল্যাটারাল ইনভেস্টমেন্ট গ্যারান্টি এজেন্সি (মিগা) নিজেরাই ঝুঁকি নিয়ে বাংলাদেশে ঋণ নিয়ে আসবে। বেসরকারি খাত, পানি উন্নয়ন, রেল, বিদ্যুৎ, অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের গ্যারান্টার হতে আগ্রহী সংস্থাটি। সরকারকে আলাদাভাবে কোনো গ্যারান্টি দিতে হবে না। তবে সরকারের কনসার্ন নিয়ে তারা বড় বড় বিনিয়োগ নিয়ে আসবে। এতে বেসরকারি খাতে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়বে।’

তিনি বলেন, পশ্চিমা অনেক ঋণ দানকারী সংস্থা আছে, যাদের বাংলাদেশ সম্পর্কে ধারণা নেই। তাদেরকে বাংলাদেশ বিষয়ে আরও পরিচিত করাবে মিগা।

এসময় বিশ্বব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট জুনায়েদ কামাল আহমদ বলেন, বাংলাদেশে বিদ্যুৎ খাতে যে বিনিয়োগ এসেছে তার ১০ শতাংশ এসেছে বিশ্বব্যাংক গ্রুপের প্রতিষ্ঠান ‘মাল্টিল্যাটারাল ইনভেস্টমেন্ট গ্যারান্টি এজেন্সির (মিগা) মাধ্যমে। বিশ্বব্যাপী বড় বড় ঋণের গ্যারান্টার হয় এই বহুপাক্ষিক বিনিয়োগ গ্যারান্টি সংস্থা। এখন বড় বড় বিনিয়োগ বা ঋণ পেতে বেসরকারি খাতকে সরকারের দিকে চেয়ে থাকতে হবে না।

তিনি বলেন, মিগার দায়িত্ব বাজার থেকে যে টাকা আসবে, কীভাবে সেটার মেয়াদ বৃদ্ধি করা যায়, কীভাবে সুদ কমানো যায় সেটা দেখা। দেশে পানি ও অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধি করার দায়িত্ব নেবে মিগা। বাংলাদেশ লো ইনকাম থেকে লো মিডল ইনকামে যাচ্ছে। আমার বিশ্বাস ভবিষ্যতে মিগা বাংলাদেশে কাজ করতে পারবে। ইতোমধ্যে বিদ্যুতে ১০ শতাংশ বিনিয়োগ নিয়ে এসেছে মিগা।

তিনি আরও বলেন, মিগার গ্যারান্টিতে আমরা বাংলাদেশে আরও বিনিয়োগ বাড়াবো। দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে দ্রুত অর্থনৈতিক গতির দেশ বাংলাদেশ। আমরা পার্টনার হিসেবে বাংলাদেশের উন্নয়নে এগিয়ে আসব। বর্তমানে বিদ্যুৎ ও সারে বিনিয়োগ নিয়ে আসছি। এখন আমরা অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগ নিয়ে আসব। আমরা অর্থনৈতিক অঞ্চলে ডিরেক্ট ফরেন ইনভেস্টমেন্ট নিয়ে আসব।

শেয়ার করুন...

আরও খবর...
© All rights reserved © 2021 | বাংলার চোখ নিউজ
Theme Customized BY LatestNews