1. [email protected] : mainadmin :
  2. [email protected] : Mohsin Molla : Mohsin Molla
  3. [email protected] : subadmin :
বাংলার চোখ নিউজ | অনলাইন সংস্করণ | বাংলাদেশে কোভ্যাকসিনের ট্রায়াল করাতে চায় ভারত
বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৩১ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশে কোভ্যাকসিনের ট্রায়াল করাতে চায় ভারত

বাংলার চোখ সংবাদ
  • সময়ঃ মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট, ২০২১

বংলার চোখ নিউজ :

বিশ্বজুড়ে চলমান করোনা মহামারী ঠেকাতে এখন ভ্যাকসিনই ভরসা। বিশ্বের অনেক দেশ ও প্রতিষ্ঠান এই ভ্যাকসিন উৎপাদন করলেও তা অনুমোদন পায়নি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে। ফলে তা বাণিজ্যিকভাবে বাজারজাত করা যাচ্ছে না। ভারতে তৈরি করোনার টিকা কোভ্যাকসিনও রয়েছে একই পর্যায়ে।

এ টিকাকে গ্রহণযোগ্য পর্যায়ে নিতে হলে প্রয়োজন ট্রায়াল। ট্রায়াল নিরাপদে সম্পন্ন হলেই তার গ্রহণযোগ্যতা নিশ্চিত হবে। ভারতের কোভ্যাকসিনের ট্রায়ালের জন্য তাই বাংলাদেশকে ব্যবহারের কথা ভাবছে দেশটির সরকার। আইসিএমআর-এর সঙ্গে যৌথভাবে কোভ্যাকসিন টিকা তৈরি করে ভারত বায়োটেক।

সরকারি এক নথির উদ্ধৃতি দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, দিল্লি বাংলাদেশে কোভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল করতে চায়। আর এজন্য এরইমধ্যে অর্থ বরাদ্দ দিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার। সেই সাথে বিভিন্ন দেশে কোভ্যাকসিনের অনুমোদন পাওয়া নিশ্চিত করতে রাষ্ট্রদূতদেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমস তাদের প্রতিবেদনে আরো উল্লেখ করে, সরকারি ওই নথিতে লেখা রয়েছে- বিদেশে, বিশেষ করে প্রতিবেশী দেশগুলোতে কোভ্যাক্সিনের গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতে বাংলাদেশে এ টিকার ট্রায়াল চালানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

ভারতের বায়ো-প্রযুক্তি বিভাগ এবং ভারত বায়োটেকের কর্মকর্তারা যাতে বাংলাদেশে এসে বিষয়টি নিয়ে দেশটির কর্মকর্তাদের কথা বলতে পারেন, সেই বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এমনকি এ ট্রায়ালের জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দও অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রণালয়। এখন অপেক্ষা ঢাকার অনুমতি। সেই অনুমতি পেলেই ট্রায়াল শুরু হবে।

ভারতে তৈরি করোনা টিকা কোভ্যাক্সিনকে এখন পর্যন্ত ছাড়পত্র দেয়নি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। জরুরিভিত্তিতে এ টিকা ব্যবহারের জন্য ছাড়পত্র দেয়ার জন্য সংস্থাটির কাছে আবেদন করেছে এই টিকার উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ভারত বায়োটেক। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কোভ্যাকসিন সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

কোভ্যাকসিন প্রস্তুতকারী সংস্থা ভারত বায়োটেক দাবি করছে, তাদের এই টিকার তিনটি ট্রায়ালের পর এটা প্রমাণিত হয়েছে যে, এটি ৭৭ দশমিক ৮ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর। অন্যদিকে করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়্যান্টের ওপর এর কার্যকারিতা ৬৫ দশমিক ২ শতাংশ।

/এমএম

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

আরও খবর...
© All rights reserved © 2021 | বাংলার চোখ নিউজ  
Theme Customized BY LatestNews