1. [email protected] : mainadmin :
  2. [email protected] : Mohsin Molla : Mohsin Molla
  3. [email protected] : subadmin :
বাংলার চোখ নিউজ | অনলাইন সংস্করণ | রাস্তার সংস্কার কাজে অনিয়ম চরমে,অভিযোগ ঠিকাদারের বিরুদ্ধে
শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৮:২৬ অপরাহ্ন

রাস্তার সংস্কার কাজে অনিয়ম চরমে,অভিযোগ ঠিকাদারের বিরুদ্ধে

বাংলার চোখ সংবাদ
  • সময়ঃ বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১

জাহিদুল ইসলাম মেহেদী (বরগুনা) প্রতিনিধি :

বরগুনা-বেতাগী উপজেলায় ব্রিহত্তম পটুয়াখালী বরগুনা অবকাঠামো উন্নয়ন শীর্ষক প্রকল্প (ID No- 538830) বেতাগী আঞ্চলিক প্রধান সড়ক থেকে করুনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংলগ্ন রাস্তার পুনর্নির্মাণকাজের শুরুতেই ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ, যেনতেনভাবে কাজ করে বিপুল অর্থ লোপাট করছেন সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার। রাস্তায় মাটির কাজ ধরা থাকলেও তা না করে পূর্বের লেভেলে কাজ চলমান রয়েছে সরেজমিনে এসব অনিয়মের সত্যতা পাওয়া গেছে।

বরগুনা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ (এলজিইডি) সূত্রে জানা গেছে, বরগুনা বেতাগী আঞ্চলিক মহাসড়ক থেকে কারিকর বাজার পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার রাস্তার দুপাশ উঁচুতকরণ ও পুনর্নির্মাণকাজ শুরু হয় ২০২১ সালের মে মাসে। প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্পের আওতায় উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে।

বেতাগী উপজেলা কাঠালতলা থেকে কারিকর বাড়ি পর্যন্ত রাস্তার দেড় কিলোমিটার অংশের এক কোটি ১৮ লাখ টাকার কাজ পান মেসার্স সিকদার কনস্ট্রাকশন।

অভিযোগ উঠেছে, প্রতিষ্ঠানটি শুরু থেকেই বিভিন্ন রাজনৈতিক পরিচয় দিয়ে ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে কাজ করছে।

প্রাক্কলন অনুযায়ী সড়কটির দুপাশে দেড় ফুট উঁচু করে রাস্তা পুনর্নির্মাণের কথা। স্থানীয় করুণা গ্রামের বাসিন্দা মাহবুবুর রহমান অভিযোগ করেন, সড়কের এই অংশের কাজে দুই পাশে উঁচুতকরণের জন্য জায়গা নাই।

সড়কে উঁচু না করে রাস্তার থেকে নিচু করে কাজ চলমান রয়েছে পুরোনো রাস্তার ওপরের অংশ থেকে নিচু হওয়ার কারণে পানিতে প্লাবিত হতে পারে নতুন রাস্তা।

স্থানীয়রা জানান, আমরা এর প্রতিবাদ করলে ঠিকাদারের লোকেরা মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলার ভয় দেখায়।’

অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে ঠিকাদার প্রতিনিধি মামুন তা অস্বীকার করে বলেন, ‘আমি এবং যুবলীগ নেতা লিটন কাজ করছি তথ্য জানার থাকলে কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করুন আপনাদের কোনো তথ্য দিতে বাধ্য না আমি।

এলজিইডির বেতাগী উপজেলা প্রকৌশলী শিপলু কর্মকার বলেন, এলজিইডির কাজে কোন অনিয়ম দুর্নীতি করার সুযোগ নেই। কাজে যদি কোনো অনিয়ম করে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে চিঠি ইস্যু করা হবে। ঠিকাদারের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এমটিকে/বাংলারচোখ

সামাজিক মাধ্যমগুলোতে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

এই বিভাগের আরও খবর...
© All rights reserved © 2021 www.banglarchokhnews.com  
Theme Customized BY LatestNews