1. [email protected] : mainadmin :
  2. [email protected] : Mohsin Molla : Mohsin Molla
  3. [email protected] : subadmin :
বাংলার চোখ নিউজ | অনলাইন সংস্করণ | লামায় হিন্দু মন্দিরে ভাঙচুর; ওসি সহ আহত অনেক
বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৭:২৫ অপরাহ্ন

লামায় হিন্দু মন্দিরে ভাঙচুর; ওসি সহ আহত অনেক

বাংলার চোখ সংবাদ
  • সময়ঃ বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২১

 

বান্দরবান প্রতিনিধি :

কুমিল্লা পুজা মন্ডপে ঘটনাকে কেন্দ্র করে বান্দরবান লামা উপজেলায় দুই পক্ষে সংঘর্ষে হিন্দু কেন্দ্রীয় মন্দির ভাংচুর ও লামা সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মিজানুর রহমান সহ বেশ কয়েজন আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) হিন্দু ধর্মালম্বীদের মহানবমীর দিন সকালে কুমিল্লায় মন্দিরে কুরআন অবমাননার কথিত বিষয়টিকে কেন্দ্র করে লামা কেন্দ্রীয় মন্দিরে হামলার ঘটনাটি ঘটে। সংঘর্ষে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মাঠে নেমেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

সুত্রে জানা যায়, কুমিল্লায় দূর্গা মন্দিরে পবিত্র মহাগ্রন্থ আল কোরআন অপমানের ঘটনাকে কেন্দ্র করে লামা উপজেলার সর্বস্তরে তৌহিত জনতার ব্যানারে লামায় এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। শেষে বিক্ষোভ মিছিল করে যাওয়ার সময় বান্দরবান লামা উপজেলার কেন্দ্রীয় দূর্গাপূজা মন্ডপে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। হামলাকারীদের সঙ্গে পুলিশের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। এতে লামা থানার ওসি মোঃমিজানুর রহমানসহ কয়েকজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

আরো জানা যায়, কুমিল্লা পূজামন্ডপে পবিত্র কুরআন অবমাননার প্রতিবাদে লামা উপজেলা কার্যালয়ের সামনে লামা উপজেলা সর্বস্তরের তৌহিদ জনতার ব্যানারে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে প্রতিবাদ মিছিল বের হয়। মিছিলটি লামা কেন্দ্রীয় দূর্গা মন্দিরে পৌঁছালে পুলিশের বাঁধার সম্মুক্ষিণ হয়। এক পর্যায়ে উৎসুকজনতা মন্দিরে দিকে ইট পাথর ছুঁড়ে ও মন্দিরের সামনে থাকা প্যান্ডেল ভাংচুর করে।

এ সময় হামলাকারীদের সঙ্গে পুলিশের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। প্রায় ঘন্টা ব্যাপী এই সংঘর্ষ চলতে থাকে। এই ঘটনায় লামা থানার ওসি সহ কয়েকজন আহত হয়। আহতদের লামা সরকারি হাসপাতালে ও আলিঙ্গন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক অর্ধশত ফাঁকা গুলি (টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট) নিক্ষেপ করা হয়। তাছাড়া বহিরাগতদের সম্পূর্ণ লামা উপজেলার প্রবেশ বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন।

লামা স্থানীয় সাংবাদিক জানায়, কুমিল্লা পূজামন্ডপে পবিত্র কুরআন অবমাননার প্রতিবাদে লামা উপজেলা কার্যালয়ের সামনে শান্তির্পূণভাবে সভা হয়। অনুষ্ঠিত সভায় লামার জনপ্রতিনিধিরাও অংশগ্রহণ করেন। সভা শেষে বিক্ষোভকারীরা সভার অবস্থান ত্যাগ করার পর হঠাৎ কিছু উৎসুকজনতা প্রতিবাদ মিছিল বের করে। এতে পুলিশ বাঁধা দিলে সংর্ঘষে লিপ্ত হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশসহ কয়েকজন আহত হয়।

এ ঘটনার বিষয়ে লামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো.জাবেদ কায়সার জানান, এটি অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কাজ করছে সেনাবাহিনী, পুলিশ, আনসার ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। বর্তমানে পরিস্থিতি সাভাবিক রয়েছে।

 

পি/বাংলার চোখ

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

আরও খবর...
© All rights reserved © 2021 | বাংলার চোখ নিউজ  
Theme Customized BY LatestNews