1. [email protected] : mainadmin :
  2. [email protected] : special_reporter : special reporter
  3. [email protected] : subadmin :
বাংলার চোখ নিউজ | অনলাইন সংস্করণ | শেষ দিনেও জমে উঠেছে বান্দরবানে কোরবানী গরু হাট
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১০:০৩ অপরাহ্ন

শেষ দিনেও জমে উঠেছে বান্দরবানে কোরবানী গরু হাট

বাংলার চোখ সংবাদ
  • সময়ঃ মঙ্গলবার, ২০ জুলাই, ২০২১

আকাশ মারমা মংসিং (বান্দরবান) প্রতিনিধি :

বান্দরবানে কোরবানীকে সামনে রেখে শেষ দিনে জমে উঠেছে কোরবানী গরুর হাট। পাশাপাশি গরু হাট বাজারে বিভিন্ন এলাকায় হতে আগমন ঘটেছে গরু খামারিরা। সেই সাথে ক্রেতা ভীর জমেছে বাজার হাটে। তবে পবিত্র ঈদুল আজহার আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। এরই মধ্যে শেষ দিনেও জমে উঠেছে কোরবানি পশুর হাট। দাম ঠিক হওয়ায় পশুর হাটে ক্রেতাদের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। সাধ্যের মধ্যে গরু কিনতে অন্য জেলা থেকেও ক্রেতা ও ব্যবসায়ীরা আসছেন এসব হাটে।

এইদিকে সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আজহা বাকী ১ দিন। ফলে পশুর হাট গুলোতে বেড়েছে ক্রেতা সমাগম। বিক্রতারা জানান গত বছর এর তুলনায় এবার গরু,ছাগলের দাম লাভের আশায় থাকছেন খামারিরা।

খামারি কামাল হোসেন জানান, গেল বছরে গরু দাম দাম ছিল ৬০ হাজার। কিন্তু গত বছর তুলনাহ এই বছরে লাভ আশায় করছি। গেল কয়েকদিন চেয়ে আজ শেষ দিনে গরু বিক্রি করেছি ৮০ হাজার টাকা।

বাজারে গরু কিনতে আসা শামসুর আলম জানান, কোরবানী জন্য একটি গরু কিনেছি ৯৫ হাজার টাকা দিয়ে। তবে গত বছর চেয়ে এই বছরে গরু দাম ঠিক আছে। আশা করা যায় এই বছরে খামারিরা লাফ করতে পেরেছে।

বেতছড়া হতে আসা গরু খামারি অংপ্রুথুই মারমা জানান, নিজে পালিত গরু নিয়ে এসেছি বাজারে। দাম ধরে রেখেছি ৭৫ হাজার। অনেক ক্রেতা এসেছে দেখতে। দাম বরাবর হলে বিক্রি করে দিব।

গরু কিনতে আসা মোঃ জামিল জানান, কোরবানী দেওয়ার বাজারে গরু কিনতে এসেছি। নিজের সামর্থ্যনুযায়ী গরু কিনে কোরবানি দেওয়া চেষ্টা চালচ্ছি। তবে দামের তুলনায় এই বছরে ঠিক আছে।

উপেজেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা মোঃ সেলিম উদ্দিন জানান, গরু কোন রোগ আছে কিনা সেটা যাচাই বাচাই করা হচ্ছে। এমনকি ওষুধকৃত পশু হলে সেটি আমরা তাদেরকে সতর্ক করে দিচ্ছি।

দ্বায়িত্বরত আইনশৃঙখলা বাহিনী কামাল জানান, কোন জাল নোট চালান হয়েছে কিনা সেটি দিকে নজরদারী রাখা হচ্ছে। পাশাপাশি কোন বিশৃঙখলা না হয় সেই দিকে আইনশৃঙখলা বাহিনী কড়া নজরদারী রয়েছে।

বান্দরবান কালাঘাটা বাজারে ইজারা ক‌মি‌টির সভাপতি মো.আব্দুল রশিদ ব‌লেন,শেষ বাজারে দিনে সর্বোচ্চ গরু দাম ছিল ১ লাখ ২০ হাজার টাকা, সর্বনিম্ন ছিল ২০ হাজার ৫ শত টাকা। ফলে শেষ দিনেও ইজারা আদায় হয়েছে ২ লক্ষ টাকা।

তিনি আরো জানান, হাটে বাজারে বিভিন্ন সাইজে গরু এসেছে। তবে প্রতারণার হাত থে‌কে রক্ষা পে‌তে জাল টাকা পরীক্ষার জন্য ব্যাংকের লোকজন র‌য়ে‌ছে। এছাড়া প্র‌তি হাজা‌রে ১০ টাকা ক‌রে হা‌সিল নেওয়া হ‌চ্ছে।’পাশাপাশি আইনশৃঙখলা বাহিনী, মেডিকেল টিম ও ভলেন্টিয়ার ও কাজ করছে। সেইসাথে স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

 

এমটিকে/বাংলারচোখ

সামাজিক মাধ্যমগুলোতে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

এই বিভাগের আরও খবর...
© All rights reserved © 2021 | বাংলার চোখ নিউজ  
Theme Customized BY LatestNews