1. [email protected] : mainadmin :
  2. [email protected] : Mohsin Molla : Mohsin Molla
  3. [email protected] : subadmin :
বাংলার চোখ নিউজ | অনলাইন সংস্করণ | হাসপাতালে মাস্ক ছাড়া প্রবেশের চেষ্টা, মাথা ফাঁটিয়ে দিলেন পরিছন্নকর্মী
বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৫১ পূর্বাহ্ন

হাসপাতালে মাস্ক ছাড়া প্রবেশের চেষ্টা, মাথা ফাঁটিয়ে দিলেন পরিছন্নকর্মী

বাংলার চোখ সংবাদ
  • সময়ঃ বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

মোঃ আরিফুল ইসলাম :

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী হাসপাতালে মুখে মাস্ক না পড়ে প্রবেশের চেষ্টা করাকে কেন্দ্র করে এক রিকসা চালকের মাথা ফাঁটিয়ে দিলেন গেটে দায়িত্বরত এক পরিছন্নতাকর্মী। পরে স্থানীয়রা মারাত্মক আহত অবস্থায় রিকসা চালককে উদ্ধার করে হাসপাতাল ভর্তি করান। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফুলবাড়ী হাসপাতালের মূল গেট বন্ধ করে দিয়েছেন ভুক্তভোগির স্বজন ও বিক্ষুব্ধ জনতা। এতে বিলম্বের শিকার হয়েছেন করোনার ভ্যাকসিন নিতে আসা শতশত নারী-পুরুষ। খবর পেয়ে ফুলবাড়ী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মূল গেট খুলে দেয় এবং পরিস্থিতি শান্ত করে।

ঘটনাস্থলে থাকা প্রত্যক্ষদর্শিরা জানান, বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য রিকসা ভাড়া করে মোছাঃ হালিমা নামের এক যাত্রী রিকসায় উঠেন। রিকসা চালক হাসানুর রহমান ওই যাত্রীকে নিয়ে হাসপাতাল গেটে পৌঁছালে দায়িত্বরত হাসাপাতালে পরিচ্ছন্নতাকর্মী অঞ্জন চন্দ্র দাস মুখে মাস্ক না থাকায় প্রবেশ করতে বাঁধা দেন এবং মাস্ক পড়ে হাসপাতালে প্রবেশের জন্য বলেন। কিন্তু রিকসা চালকের মুখে মাস্ক না থাকায় দ্রুত যাত্রীকে নামিয়ে দিয়ে ফেরার জন্য আবেদন করেন। এক পর্যায় উভয়ের মধ্যে কথা কাঁটকাটি হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রিকসা চালক সাহানুরকে গাছের ডাল দিয়ে এলোপাতাড়ী আঘাত করেন অঞ্জন চন্দ্র দাস। এতে মাথা ফেঁটে যায় রিকসা চালকের। রক্তাক্ত অবস্থায় সাহানুর মাটিতে লুঠিয়ে পড়ে। এই করুণ দৃশ্য ঘটনাস্থল ও আশপাশের লোকজন দেখে তাকে উদ্ধার করে ফুলবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি করায়।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে গুরুতর আহতের স্বজনরা জড়ো হয়ে হাসপাতাল গেটে অবস্থান নেন। পরিচ্ছন্নতাকর্মী অঞ্জন চন্দ্র দাসের শাস্তির দাবি করে হাসপাতালের মূল গেট বন্ধ করে শতশত নারী পুরুষ অবস্থান নেয়। এ সময় পরিচ্ছন্নতাকর্মী অঞ্জন চন্দ্র দাস ভয়ে দ্রুত স্থান ত্যাগ করেন।

আহত রিকসা চালকের বাড়ী উপজেলার কবির মামুদ গ্রামের মৃত আকবর আলী ছেলে।

আহতের মা আম্বিয়া বেওয়া জানান, আমরা গরীব মানুষ। দিন আনি দিন খাই। তাতে ছেলেটার মাথা ফাঁটিয়ে দিয়েছে। মোর ছেলেটার মাথায় ৮টা সেলাই দিয়েছে বাহে। মোর ছেলেটা বাচঁবে কিনা একমাত্র আল্লায় যানে বাহে। মুই ঐ পরিছন্নকর্মী উপযুক্ত বিচার চাং বাহে।

এ প্রসঙ্গে ফুলবাড়ী হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দায়িত্বে থাকা মেডিকেল অফিসার মোছাঃ তাসলিমা নাসরিন জানান, মুখে মাস্ক না পড়ে হাসপাতালে প্রবেশ রিকসা চালকের মারামারি হয়েছে। রিকসা চালক সাহানুর রহমানকে ভর্তি করা হয়েছে এবং তার মাথায় ৮টি সেলাই ও প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

এমটিকে/বাংলারচোখ

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

আরও খবর...
© All rights reserved © 2021 | বাংলার চোখ নিউজ  
Theme Customized BY LatestNews